সর্বশেষ সংবাদ
স্বাস্থ্য নাটোরের সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স টেলি মেডিসিন সেবায় দেশ সেরা

নাটোরের সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স টেলি মেডিসিন সেবায় দেশ সেরা


পোস্ট করেছেন: bhorerkhobor | প্রকাশিত হয়েছে: 11/07/2017 , 3:29 am | বিভাগ: স্বাস্থ্য


ভোরের খবর ডেস্ক- ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সর্বোচ্চ সংখ্যক রোগীদের টেলি মেডিসিন সেবা দেয়ায় নাটোরের সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স দেশের মধ্যে শীর্ষ স্থান অর্জন করেছে। সাপ্তাহিক মূল্যায়নের মাধ্যমে এই অবস্থান নির্ধারণ করা হয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আমিনুল ইসলাম জানান, আজ মঙ্গলবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) ডাঃ সমীর কুমার ভিডিও টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রথম স্থান অর্জন করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগেও গত ১০ অক্টোবরসহ আরো একবার সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রথম স্থান অধিকার করেছিল। সাম্প্রতিক সময়ে সেবার মান বৃদ্ধি পাওয়াতে প্রায় প্রতি সপ্তাহে আমরা দেশের মধ্যে অবস্থান করে নিতে পারছি।
সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগীদের ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা চিকিৎসা সুবিধা নিশ্চিত করতে ২০১৬ সালের ১ জানুয়ারি থেকে টেলি মিডিসিন সেবা চালু হয়। নাটোরের সিংড়া এবং লালপুরসহ দেশের মোট ৫৭টি উপজেলায় টেলি মেডিসিন সেবা চালু রয়েছে।
সরকারী ছুটি বাদে প্রত্যেক দিন সকাল ১০ টা হতে দুপুর ১টা পর্যন্ত টেলিমেডিসিন সেবা দেয়া হচ্ছে। গ্রামীণ জনপদের বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা মানুষকে মাত্র তিন টাকা চিকিৎসা ফি প্রদানের বিনিময়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চিকিৎসা দেয়া হয়। প্রতিদিন গড়ে ১০ জন করে সেবা গ্রহিতা টেলি মেডিসিন চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করে বলে জানান টেলি মেডিসিন ইউনিটের সাপোর্ট ইঞ্জিনিয়ার মাহবুবুর রহমান শিশির।
তুলনামূলকভাবে জটিল রোগীদের বাছাই করে টেলি মেডিসিন সেবা প্রদান করা হয়। দূর দূরান্ত হতে রোগীরা বিশেষ করে গ্রামীণ জনপদের আর্থিক সংগতি না থাকা দরিদ্র জনগোষ্ঠীই মূলত এ সেবা গ্রহণ করছেন।
টেলি মেডিসিন চিকিৎসা সেবার দায়িত্বে নিয়োজিত সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা: নাসরিন সুলতানা জানান, চলতি সপ্তাহে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মোট ৫৫ জন রোগী টেলিমেডিসিন সেবা গ্রহণ করেছেন। আর গত ৫ মার্চ থেকে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন চালু করার পর থেকে এ পর্যন্ত সেবা পেয়েছেন ৬৯২ জন রোগী।
ডা: নাসরিন বলেন, রোগীদের সমস্যা ভালোভাবে অবহিত হয়ে আমি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে উপস্থাপন করি। প্যাথলজিসহ অন্যান্য পরীক্ষা-নিরিক্ষার রিপোর্টও তাদের কাছে প্রেরণ করা হয়। সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ মোতাবেক আমি রোগীদের ব্যবস্থাপত্র লিখে দেই।
মেডিসিন, কার্ডিওলজি, হাড়জোড়, ইএনটি, শিশু, চক্ষু, ¯œায়ু, চর্ম এবং সার্জারী বিষয়ে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যাপক এবং হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের কাছ থেকে পরামর্শ নিয়েছেন রোগীরা। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হাড়জোড় বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো: ওবায়দুল্লাহ চিকিৎসা পরামর্শ দিয়েছেন গত বৃহস্পতিবার শেফালী ও মানছুরাকে। চক্ষু বিজ্ঞান ইন্সটিটিউটের ডা: নিশাত পারভীন এর কাছ থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চোখের সমস্যায় পরামর্শ গ্রহণ করে সংশ্লিষ্ট ওষুধ ব্যবহার করছেন মসজিদের ইমাম আবু মুসা। তিনি বলেন, চোখের প্রদাহ এখন অনেকটাই সহনীয়। স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চর্ম বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা: ইফতেখার আহমেদের পরামর্শে ওষুধ ব্যবহার করে ১১ বছরের শিশু নাইম এখন সুস্থ।
স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, সিংড়া উপজেলায় বৃহৎ জনগোষ্ঠীর বসবাস। ১২টি ইউনিয়ন এবং ১টি পৌরসভার প্রায় ৫ লাখ মানুষের উন্নত স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এ সেবা চালু করা হয়। ইতোমধ্যে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা টেলি মেডিসিন সেবার মাধ্যমে চলনবিলসহ বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ এর সুফল ভোগ করছেন। আশা করি এ কার্যক্রমের মাধ্যমে শুধু সিংড়া নয়, পুরো জেলার মানুষ টেলি মেডিসিন সেবার সুফল পাবেন।

Comments

comments

Close