আজ: ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, শনিবার, ১২ ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৮ জমাদিউস-সানি, ১৪৩৯ হিজরী, রাত ১২:৩৮
সর্বশেষ সংবাদ
অর্থ ও শিল্প সেরা করদাতারা পেলেন সম্মাননা

সেরা করদাতারা পেলেন সম্মাননা


পোস্ট করেছেন: bhorerkhobor | প্রকাশিত হয়েছে: ১১/০৯/২০১৭ , ৩:৪৩ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: অর্থ ও শিল্প


ভোরের খবর ডেস্ক- বেলা ১২টা না বাজতেই সব করদাতাদের গন্তব্য ছিল আগারগাঁয়ে নির্মাণাধীন জাতীয় রাজস্ব ভবনের দিকে। উদ্দেশ্য একটাই আয়কর সম্মাননা পাওয়ার সঙ্গে ট্যাক্স কার্ড পাওয়া। বাড়তি পাওনা হচ্ছে লাল গালিচায় অভ্যর্থনা। ১২টা পেরুতে যতই ভবনের ভেতরে যাওয়া ততই ভিড়ের পালা। স্টেজের কাছে কিছু সোফার আসন। এরপরে দীর্ঘ চেয়ারের সারি। সেসব চেয়ার স্টিকার সাঁটানো সর্বোচ্চ করদাতা থেকে শুরু করে বেশি কর প্রদানকারীর আসন। কমবেশি সবাই ১২টার পর আসলেও অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আসেন ১টার একটু আগে। তারপরই শুরু হয় সম্মাননা প্রদানের পালা। আগে থেকেই ঘোষণা। তাই অর্থমন্ত্রী দিতে শুরু করেন দেশের সব খাতের শীর্ষ ব্যবসায়ী, ব্যাংক, গণমাধ্যমের মালিক ও সম্পাদক, গায়িকা, নায়িকা, প্রকৌশলী, স্থপতিদের সেই পুরস্কার। শুধু তাই নয়, সিনিয়র নাগরিক, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, মন্ত্রী থেকে এমপি, উকিল থেকে ব্যারিস্টার। এমনকি ছোট শিশুদেরও পুরস্কৃত করা হয় কর প্রদানের অঙ্গ হিসেবে রচনা প্রতিযোগিতায় অবদান রাখায়। পণ্য বেচাকেনার সুযোগ না থাকলেও এভাবেই সরকারকে আয়কর দিয়ে উৎসবে মেতে ওঠেন বয়োজ্যেষ্ঠ থেকে শুরু করে ছোট শিশুরা। দুপুর হওয়ায় দ্বিতীয়তলায় খানাপিনারও ব্যবস্থা করে কর্তৃপক্ষ। সঙ্গে পান, সুপারি, জর্দা দিতেও ভুলে যাননি। সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলার পরের দিনই গতকাল কর বাহাদুর পরিবার ও সেরা করদাতা সম্মাননা অনুষ্ঠানে এমনই চিত্র দেখা যায়।

অনুষ্ঠানে ২০১৬-১৭ করবছরে ৩৭০ জনকে সর্বোচ্চ আয়কর এবং ১৪৭ জনকে দীর্ঘসময় আয়কর প্রদানকারীর কথা বলা হয়। একইসঙ্গে ১৪১ জন সেরা করদাতা ও প্রথমবারের মতো দীর্ঘসময়ে কর প্রদানের জন্য ৮৪ ব্যক্তি ও তার পরিবারকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। এছাড়া কর প্রদানে শিল্পোদ্যোক্তাদের উদ্বুদ্ধকরণ সংবাদ পরিবেশনের জন্য সংবাদপত্র, টিভি চ্যানেল ও অনলাইন পত্রিকার সংবাদকর্মীদেরও সম্মাননা দেয়া হয় অনুষ্ঠানে। জাতীয় রাজস্ব রোর্ডের চেয়ারম্যান সিনিয়র সচিব মো. নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. আব্দুর রাজ্জাক, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন। একসময়ে এনবিআর চেয়ারম্যানের লেখা প্রটোকল ব্যবস্থপনা ও আন্তর্জাতিক শিষ্টাচার বইয়ের মোড়কও উন্মোচন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথিসহ সবাই উপস্থিত হওয়া মাত্রই এনবিআর সদস্য মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, অর্থমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ৮৪টি পাবরারকে ‘করবাহাদুর’ সম্মাননা দেয়া হচ্ছে। এরপরই মাদারীপুর জেলার সেরা করবাহাদুর হিসেবে পুরস্কার গ্রহণ করেন নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাহজাহান খান ও তার পরিবার। এমপি একেএম রহমতুল্লাহ ও তার পরিবার, গোলাম দস্তগীর গাজী ও তার পরিবার, কাজী ফিরোজ রশিদ ও তার পরিবারকে সম্মাননা দেয়া হয়। এভাবে করবাহাদুরের সম্মাননা পেতে থাকেন ঢাকার খাজা তাজমহল ও তার পরিবার, কুতুবউদ্দিন আহমেদ ও তার পরিবার, আব্দুস সালাম মুর্শেদী ও তার পরিবার, লতিফুর রহমান ও তার পরিবার, নিটল নিলয় গ্রুপের আব্দুল মাতলুব আহমাদ ও তার পরিবারসহ সারাদেশের ৮৪ জন। অনুষ্ঠানে সিনিয়র সিটিজেন ক্যাটাগরিতে স্যামুয়েল এস চৌধুরী, আলী হোসাইন আকবর আলী, অনিতা চৌধুরী এবং এম আনিস-উদ-দোলাসহ ৫ জনকে দেয়া হয় সম্মাননা ও ট্যাক্স কার্ড। যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে আবু সালেহ মোহাম্মদ নাসিমসহ ৫ জন, প্রতিবন্ধীদের মধ্যে আকরাম মাহমুদসহ ৩ জন, নারী ক্যাটাগরিতে লায়লা হোসেনসহ ৫ জনকে সম্মাননা দেয়া হয়। ৪০ বছরের নিচে নাফিস সিকদারসহ ৫ জনকে দেয়া হয় ট্যাক্স কার্ড। ব্যবসায়ী ক্যাটাগরিতে মো. কাউছ মিয়াসহ ৫ জন, সর্বোচ্চ বেতনভোগী হিসেবে আব্দুল মুক্তাদিরসহ ৫ জন, ডাক্তার হিসেবে অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্তসহ ৫ জন, সাংবাদিক ক্যাটাগরিতে ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনাম, প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান, সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ারসহ ৫ জনকে সম্মাননা ও ট্যাক্সকার্ড দেয়া হয়।

আইনজীবী হিসেবে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপসসহ ৫ জন, প্রকৌশলী হিসেবে শ্যামল কান্তি ঘোষসহ ৩ জন এবং স্থপতি হিসেবে মো. ইকবাল হাবিবসহ ৩ জন পান করবাহাদুর ট্যাক্সকার্ড। অ্যাকাউন্ট ক্যাটাগরিতে সম্মাননা পান মো, মোক্তার হোসেনসহ ৩ জন, খেলোয়াড়দের মধ্যে পান তামিম ইকবালসহ ৩ জন, অভিনেতা ও অভিনেত্রী হিসেবে পান মেহের আফরোজ শাওন ও জাহিদ হোসেনসহ অন্যরা। গায়িকার তালিকায় পান রুনা লায়লা, রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা এবং এসডি রুবেল। অনুষ্ঠানে ব্যাংকিং খাতে ইসলামী ব্যংক, স্টান্ডার্ড ব্যাংক ও ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক এবং নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইডিএলসি ফাইন্যান্সও সম্মাননা পায়।

এছাড়া গ্রামীণফোন, নাভানা, নেসলে, তিতাস গ্যাস, সিলেট গ্যাস ফিল্ড, জনতা জুট মিল, নাভানা লিমিটেড, এনভয় টেক্সটাইল, স্কয়ার টেক্সটাইল, ইউনিলিভার বেক্সিকো ফার্মা, মিডিয়া স্টার লিমিটেড, ট্রান্সক্রাফট লিমিটেডকেও পুরস্কৃত করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, কর প্রদানে উদ্বুদ্ধকরণে বিশেষ অবদানের জন্য গণমাধ্যমকর্মীদেরও দেয়া হয় সম্মাননা। এর মধ্যে মানবকণ্ঠের বিজনেস এডিটর সৈয়দ শাহনেওয়াজ করিমসহ বিভিন্ন সংবাদপত্র, টিভি চানেল ও অনলাইন পত্রিকার সংবাদকর্মীরাও রয়েছেন। ‘সবাই মিলে দেব কর দেশ হবে স্বনির্ভর’ রচনা প্রতিযোগিতায় কৃতিত্ব দেখানোয় বিয়াম মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ২য় শ্রেণির ছাত্র লাবিব উদ্দিন আহমেদসহ ৬ জন এবং জনকল্যাণে রাজস্ব রচনা প্রতিযোগিতায় কৃতিত্ব দেখানোয় ভিকারুননিসা নুন কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী মেহেনাজ আহমেদ মমসহ ৬ জনকে সম্মননাসহ ২৫ হাজার টাকার প্রাইজ বন্ড দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, ১ নভেম্বর শুরু হওয়া সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলা গত মঙ্গলবার শেষ হয়। এতে ব্যাপকভাবে করদাতাদের উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা যায়। সবার কথা বিবেচনা করে সময়ও বাড়ানো হয়। মেলায় ২ হাজার ২১৭ কোটি টাকা আয়কর পেয়েছে এনবিআর।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Pin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Tumblr0Email this to someonePrint this page

Comments

comments

Close