আজ: ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, শনিবার, ১২ ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৮ জমাদিউস-সানি, ১৪৩৯ হিজরী, রাত ১২:৩৬
সর্বশেষ সংবাদ
বিশেষ প্রতিবেদন পরিচালক হিমেল আশরাফের বিরুদ্ধে প্রতারনার অভিযোগ

পরিচালক হিমেল আশরাফের বিরুদ্ধে প্রতারনার অভিযোগ


পোস্ট করেছেন: bhorerkhobor | প্রকাশিত হয়েছে: ১১/১৩/২০১৭ , ২:২৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: বিশেষ প্রতিবেদন


রেজাউর রহমান রিজভী-  সম্প্রতি নাট্য পরিচালক হিমেল আশরাফের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। আরটিভি থেকে ধারাবাহিক নাটকের জন্য প্রায় ১৩ লাখ টাকা অগ্রিম নিয়ে তিনি নাটক বানিয়ে প্রচার করেছেন একুশে টিভিতে। ইতিমধ্যে একুশে টিভিতে নাটকটির একটি পর্ব প্রচারিতও হয়ে গেছে। নাটক প্রচারের পরই মূলত অর্থ প্রদানকারী সংশ্লিষ্ট চ্যানেল আরটিভির নজরে আসে বিষয়টি। আরটিভি থেকে সরাসরি পরিচালকের কাছে চিঠির মাধ্যমে লিখিত জবাব চাওয়া হয়। চিঠির অনুলিপি প্রেরণ করা হয় একুশে টিভির চেয়ারম্যান ও সিইও. টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রোডিউসার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি মামুনুর রশীদ এবং ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি গাজী রাকায়েতের কাছে। অনুলিপির একটি ফটোকপি প্রতিবেদকের কাছে আসার পরই মূলত বিষয়টি সম্পর্কে জানা যায়।

গত ৯ নভেম্বর ২০১৭ তারিখে আরটিভির অনুষ্ঠান প্রধান দেওয়ান শামসুর রকিবের স্বাক্ষরিত এই চিঠিতে পরিচালক হিমেল আশরাফকে বলা হয়েছে যে-“গত ৮ নভেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার রাত ৯-৩০ মিনিটে ইটিভিতে প্রসূন রহমান রচিত ও হিমেল আশরাফ পরিচালিত ‘গুগল ভাই সব জানে’ ধারাবাহিক নাটকটি প্রচার হয়েছে, যা আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। উক্ত নাটকটি আপনার সাথে গত ২ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে ২৬ পর্বের চুক্তি করা হয়েছিল। অগ্রিম হিসেবে চেকের মাধ্যমে আপনাকে ১২,৯৬,০০০/- (বারো লক্ষ ছিয়ানব্বই হাজার টাকা) মাত্র প্রদান করা হয়।

পরবর্তীতে অনুষ্ঠান বিভাগের সাথে আলোচনাক্রমে যথাক্রমে মেজবাহ উদ্দীন সুমনের পরিবর্তে প্রসূন রহমানের রচনায় এবং সালাউদ্দিন লাভলু, তারিন জাহান, দিলারা জামান, আবদুল্লাহ রানা, নাদিয়া নদী প্রমুখ অভিনয়শিল্পীদের নিয়ে ‘গুগল ভাই সব জানে’ নামক নাটকটি নির্মিত করে এ বছর ফেব্রুয়ারিতে নাটকটির ১২ পর্ব প্রিভিউর জন্য জমা প্রদান করেন এবং ২০ পর্ব পর্যন্ত শুটিং করা আছে বলে জানান।

নাটকটি নির্মাণ ও প্রিভিউর জন্য জমা প্রক্রিয়ায় আপনি দীর্ঘসূত্রিতার আশ্রয় নিয়েছেন। তারপরও নাটকটি প্রিভিউ করার পর প্রিভিউ কমিটি কিছু পর্যবেক্ষণ সাপেক্ষে নাটকটি জমা দিতে বলেন। আপনি জমা না দেয়ায় বারবার তাগাদা দেয়া সত্যেও আপনি কোন ভাবেই সহযোগিতা করেননি, বরং কালক্ষেপণ করেছেন।

আরটিভি টেলিভিশন নাটকের উৎকর্ষ আনার জন্য পরিচালকদের বিচ্ছিন্নভাবে সহায়তা দিয়ে থাকে। নাটক নির্মাতাদেরকে অগ্রিম প্রদানের মাধ্যমে সহায়তা প্রদান করে। এছাড়া কোন নাটক প্রিভিউতে মনোনীত হলে আরটিভি চুক্তি-পত্র স্বাক্ষরের সাথে সাথে নগদ মূল্যে নাটক ক্রয় করে থাকে এবং প্রতি বছর জাঁকজমকের সাথে নাট্য শিল্পী ও নির্মাতাদের উৎসাহ প্রদানের জন্য আরটিভি অ্যাওয়ার্ডের মাধ্যমে সম্মাননা জানিয়ে থাকে। আপনাদের মত নাট্য নির্মাতাদের এই ধরণের আচরণ আমাদেরকে হতোদ্যম করে।

আরটিভির জন্য নির্মিত নাটক একুশে টেলিভিশনে প্রচার বিষয়টি চুক্তিপত্রের পরিপন্থী। এর ফলে আরটিভি আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। এ ব্যাপারে তিন দিনের মধ্যে লিখিতভাবে পরিকল্পনা প্রদান করবেন অন্যথায় আরটিভি কর্তৃপক্ষ আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।”

এ সম্পর্কে আরটিভির অনুষ্ঠান প্রধান দেওয়ান শামসুর রকিবের সঙ্গে মানবকণ্ঠ থেকে যোগাযোগ করা হলে তিনি চিঠির সত্যতা সম্পর্কে স্বীকার করেন এবং বিষয়টিকে প্রতারণার সামিল বলে মন্তব্য করেন।

অন্যদিকে হিমেল আশরাফ বলেন, আরটিভি থেকে নাটকটি ভালো হয়নি বলে তাকে জানানোর কারণে তিনি এটি একুশে টিভিতে প্রচারের জন্য জমা দিয়েছিলেন। তার মূল উদ্দেশ্য ছিল, এতে করে লগ্নিকৃত অর্থ ফেরত পেয়ে সেটি দিয়ে আরেকটি নাটক বানিয়ে আরটিভিতে তিনি জমা দেবেন। কিন্তু এখন আরটিভি থেকে চিঠি পাবার পর ‘গুগল ভাই সব জানে’ নাটকটি-ই তিনি একুশে টিভি থেকে নিয়ে গতকাল রোববার আরটিভিতে জমা দিয়েছেন। আরটিভি কর্তৃপক্ষও এ বিষয়টি মেনে নিয়েছেন।

ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি গাজী রাকায়েত এ বিষয়ে বলেন, হিমেল আশরাফ আমাদের ডিরেক্টরস গিল্ডের সদস্য। এজন্য আরটিভি কর্তৃপক্ষ আমাদেরকে বিষয়টি জানিয়েছে। তবে এটা হিমেল মূলত আর আরটিভি কর্তৃপক্ষের সমস্যা। তবে আরটিভি যদি ডাকে তবে আমরা যাবো।

এদিকে দেওয়ান শামসুর রকিব পুরো বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, পরিচালক হিমেল আশরাফ বছরের পর বছর কাজটি নিয়ে আমাদেরকে ঘুরিয়েছে। যেখানে অধিকাংশ চ্যানেল নির্মাতাদেরকে টাকা দিতে নানা সময়ক্ষেপণ করে, সেখানে আমরা নির্মাতাদেরকে অগ্রিম প্রদান করার রীতি চালু করেছি। নাটকের ক্যাসেট হাতে দেয়া মাত্র তাদেরকে পেমেন্ট দিচ্ছি। কিন্তু এই রকম মানসিকতার পরিচালক থাকলে আমাদের আস্থার জায়গা তো নষ্ট হয়ে যাবে। আমরা তাকে সরল বিশ্বাসে কাজ দিলাম আর সে আমাদের সাথে প্রতারণা করলো। কারণ আমরা তো তাকে বলিনি যে আমাদের টাকায় বানানো নাটক অন্য চ্যানেলে প্রচার করেন। কিন্তু সে এই কাজটাই করেছে।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Pin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Tumblr0Email this to someonePrint this page

Comments

comments

Close