আজ: ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, বৃহস্পতিবার, ১০ ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৭ জমাদিউস-সানি, ১৪৩৯ হিজরী, সকাল ৭:০৬
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা সংবাদ স্কুলছাত্রীর সঙ্গে এ কেমন নির্মমতা!

স্কুলছাত্রীর সঙ্গে এ কেমন নির্মমতা!


পোস্ট করেছেন: niher sarkar | প্রকাশিত হয়েছে: ০১/২৮/২০১৮ , ১২:৪৫ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জেলা সংবাদ


জামালপুর সংবাদদাতাঃ

জামালপুরের বকশীগঞ্জে ৫ম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে বাঁশের খুঁটির সাথে বেঁধে ব্লেড দিয়ে শরীর কেটে জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পৌর এলাকার পূর্ব মেষেরচর গ্রামে রোববার ভোরে এ ঘটনাটি ঘটে। ওই স্কুলছাত্রীকে বিকেলে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত আকাশ ও তার বড় ভাই হাবিবর রহমানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ধর্ষিতার পরিবারের অভিযোগে জানা গেছে, মেষেরচর পূর্বপাড়া গ্রামের কৃষক কালাম মিয়ার ৫ম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়ে ভোরে প্রকৃতির সাড়া দিতে বের হয়। এসময় উৎপেতে থাকা আকাশ ওই স্কুলছাত্রীর মুখে মাটি গুজে দিয়ে নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। সেখানে বাঁশের খুঁটির সাথে বেঁধে ব্লেড দিয়ে শরীরের বিভিন্নস্থানে ক্ষত বিক্ষত করে। এক পর্যায়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

এসময় ওই স্কুলছাত্রীর চিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসলে আকাশ পালিয়ে যায়। পরে ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে প্রথমে বকশীগঞ্জ হাসপাতালে অবস্থার অবনতি হলে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়।

জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সৌমিত্র কুমার ভৌমিক জানান, ওই স্কুলছাত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ধর্ষণ ও রক্তাক্ত জখমের শিকার হয়েছে বলে প্রথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। পরীক্ষা-নিরীক্ষায় বিস্তারিত বলা যাবে।

এ ব্যাপারে স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে বকশীগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেছেন বলে ওসি আসলাম হোসেন জানান।

স্কুলছাত্রীর বাবা বলেন, অনেক দিন ধরেই আমার মেয়েকে উত্যক্ত করে আসছিলো আকাশ। সুযোগ পেয়ে সে আমার মেয়ের এত বড় সর্বনাশ করেছে। আমি এই ঘটনার ন্যায় বিচার চাই।

জামালপুরের পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন জানান, বকশিগঞ্জের স্কুলছাত্রীটি ধর্ষণ ও অমানবিক শারিরীক নির্যাতনের শিকার হয়েছে। দোষী আকাশ ও তার ভাই হবিবর গ্রেফতার হয়েছে।

Share on Facebook0Tweet about this on TwitterShare on Google+0Pin on Pinterest0Share on LinkedIn0Share on Tumblr0Email this to someonePrint this page

Comments

comments

Close