সর্বশেষ সংবাদ
খেলাধূলা শচিন আউট ৯৯! চট্টগ্রাম টেস্টের শতরান নিয়ে প্রশ্ন

শচিন আউট ৯৯! চট্টগ্রাম টেস্টের শতরান নিয়ে প্রশ্ন


পোস্ট করেছেন: Habibul Kabir | প্রকাশিত হয়েছে: 03/08/2018 , 1:52 am | বিভাগ: খেলাধূলা


অনেক ভক্তের কাছেই তিনি ক্রিকেটের ‘ঈশ্বর’। আর আলোচনায় যে বই, সেটিও অনেকের কাছে ক্রিকেটের ‘বাইবেল’। সেই ‘বাইবেলে’রই সাম্প্রতিক সংস্করণ জানাচ্ছে, ‘ঈশ্বর’ আসলে শতরানের সেঞ্চুরি করেননি। আউট হন ৯৯-তে!

টেস্ট, একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ মিলিয়ে শচিন রমেশ টেন্ডুলকারের শতরানের সংখ্যা ১০০। এটাই এতকাল জানা। ৫১টি টেস্ট সেঞ্চুরি ও একদিনের আন্তর্জাতিকে ৪৯টি সেঞ্চুরি শচিনের পকেটে। অর্থাৎ, মোট ১০০।

কিন্তু সদ্য প্রকাশিত ২০১৮-র ‘উইজডেন ক্রিকেটার্‌স অ্যালমানাক’ অনুযায়ী, ২০০৭-এর মে মাসে চট্টগ্রাম টেস্টে, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে শচিনের ১০১ রানের ইনিংসে দু’টি লেগ বাই ভুলবশত তাঁর ব্যক্তিগত রান হিসাবে যুক্ত হয়ে গিয়েছিল। যে দু’টো রান আসলে অতিরিক্ত হিসাবে দলের মোট রানের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার কথা।

চট্টগ্রাম স্টেডিয়ামে ওই টেস্টে শচিন ১০১ রানে আউট হয়েছিলেন শাহাদাত হোসেনের বলে কভারে মহম্মদ আশরাফুলের হাতে ক্যাচ তুলে। সেক্ষেত্রে লেগ বাই’য়ের ওই দু’রান বাদ দিলে শচিনের রান দাঁড়াচ্ছে ৯৯। টেস্টে শতরানের সংখ্যা তার মানে ৫১ থেকে একটি কমে হবে ৫০। তা হলে শচিনের মোট শতরানের সংখ্যাও ১০০ না, হবে ৯৯।

বিসিসিআই (বোর্ড অফ কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া) খতিয়ে দেখবে, বিষয়টি কত দূর ঠিক।

বিসিসিআইয়ের কার্যনির্বাহী সভাপতি সি কে খন্না সোমবার বলেন, ‘‘আমাদের আগে খতিয়ে দেখতে হবে, উইজডেন ঠিক কী বলছে আর সত্যিই এমনটা ঘটেছিল কি না। সেই অনুযায়ী আমরা পরবর্তী পদক্ষেপ করব।’’

সত্যি হলে কি ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড শচিন টেন্ডুলকারের ব্যক্তিগত রেকর্ডে পরিবর্তনের জন্য আইসিসি’কে (ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল) সুপারিশ করতে পারে? বোর্ডের কার্যনির্বাহী সভাপতি খন্না বলেন, ‘‘এটা এখনই বলা সম্ভব নয়। আগে আমরা গোটা বিষয়টা অনুসন্ধান করে দেখি।’’

বস্তুত, বিসিসিআই এখনও বিষয়টি সম্পর্কে সঠিকভাবে অবগত নয়। বোর্ডে’র কার্যনির্বাহী সচিব অমিতাভ চৌধুরী এদিন বলেন, ‘‘এ রকম কিছু তো আমার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে দেখছি।’’

শচিনের এক ঘনিষ্ঠ মুম্বাই থেকে এদিন বলেন, ‘‘অনেক ভুল সিদ্ধান্ত শচিনের বিরুদ্ধে গিয়েছে। তাঁর গোটা ক্রিকেট কেরিয়ারে শচিন বহু ভুল সিদ্ধান্তের শিকার। সে সব না হলে শচিন আরও বহু কীর্তি স্থাপন করতে পারতেন। তা হলে কি উইজডেন এবার সেগুলিও পাল্টানোর কথা বলবে?’’ ওই শচিন-ঘনিষ্ঠের কথায়, ‘‘একটা টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাকগ্রার বল শচিনের কাঁধে লেগেছিল। অথচ ওঁকে এল বি ডব্লিউ দেওয়া হয়! ও রকম আরও আছে। তাহলে ওই সব ইনিংস শচিন ফেরত পাবেন তো!’’

শচিন-ঘনিষ্ঠ ওই ব্যক্তি মনে করেন, ‘‘আইসিসি কী বলবে, সেটাই আসল। আর উইজডেন কী ভাবে ওই সিদ্ধান্তে পৌঁছল, কী ভাবে তারা বিষয়টিকে প্রমাণ করবে, তা নিয়েও প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে।’’ তাঁর কথায়, ‘‘এতে অবশ্য ক্রিকেট ঈশ্বরের গৌরব কিছু কম হয় না।’’

‘উইজডেন ক্রিকেটার্‌স অ্যালমানাক’- এর সম্পাদক ও বিলেতের খ্যাতনামা ক্রিকেট লিখিয়ে লরেন্স বুথ লিখেছেন, ‘শচিন টেন্ডুলকারের ১০০টি সেঞ্চুরির পুঙ্খানুপুঙ্খ বিশ্লেষণ থেকে বেরোচ্ছে যে, ২০০৭’র মে মাসে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম টেস্টে দু’টি লেগবাইকে ভুল করে তাঁর রান হিসাবে দেওয়া হয়েছিল। ফলে, ওই টেস্টে শচিনের ১০১ রান ৯৯ রান হয়ে যাচ্ছে।’ লরেন্সের ভাষায়, ‘এটা সুস্বাদু পরিহাস (ডিলিশাস আয়রনি)।’ তাঁর সংযোজন, ‘উন্নত প্রযুক্তির পরিণাম এমন কিছু হয়, যা আমরা চাই না।’

এই ‘উইজডেন ক্রিকেটার্‌স অ্যালমানাক’ই ২০১৩ সালে তাদের সার্ধ শতবর্ষ পূর্তিতে সর্বকালের সেরা টেস্ট একাদশে ভারতের এক জন ব্যাটসম্যানকেই বেছেছিল। তিনি শচিন।

বাংলাদেশে সেবার দু’টেস্ট সিরিজের সেটা ছিল প্রথম টেস্ট। আম্পায়ার ছিলেন বিলি রেমন্ড ডকট্রোভ ও ডারেল হার্পার। তৃতীয় আম্পায়ার নাদির শাহ আর ম্যাচ রেফারি ছিলেন রোশন মহানামা।

চট্টগ্রামের ওই টেস্টে ভারতের অধিনায়ক ছিলেন রাহুল দ্রাবিড়। সচিন ছাড়া ভারতের আর এক জন শতরান করেছিলেন। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়!

Comments

comments

Close