সর্বশেষ সংবাদ

7 আপ এর স্পন্সর পেলো ব্রাজিল !


পোস্ট করেছেন: niher sarkar | প্রকাশিত হয়েছে: 06/11/2018 , 1:58 pm | বিভাগ: খেলাধূলা,জেলা সংবাদ,ময়মনসিংহ বিভাগ,শিক্ষাঙ্গন


নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

রাশিয়া ফুটবল বিশ্বকাপ-২০১৮ উন্মাদনায় পিছিয়ে নেই বাংলাদেশ । এর প্রভাব পড়েছে সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতেও। তার মধ্যে একটি জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশ্বকাপের উন্মাদনায় কেবল শিক্ষার্থীরা ভাসছে না সেই স্রোতে গাঁ মিশিয়েছে অনেক শিক্ষক। খোলা হয়েছে পছন্দের দলের অনুসারিদের নিয়ে ফেইসবুক গ্রুপ। সেই পছন্দের দলের তালিকায় এগিয়ে আছে আর্জেন্টিনা,ব্রাজিল ও জার্মানি । কেবল পছন্দের দল নিয়ে নয় খোলা হয়েছে আর্জেন্টিনা vs ব্রাজিল ফ্যান ক্লাব । কোন দল সেরা চলছে তা নিয়ে তুমুল তর্ক ,বিতর্ক । নিজ নিজ পছন্দের দলকে এগিয়ে রাখছে সমর্থকরা ।

সমর্থকরা তর্কের ছলে অনেক সময় জড়িয়ে পড়ছে মধুর স্নায়ু যুদ্ধে । যে যুদ্ধে অন্য  দলের দুর্বলতা প্রকাশ করাই যেন যুদ্ধে বিজয়ী হওয়ার মূল শর্ত।

এই পালে বাতাস দিয়ে নতুন মোড় দিলো ব্রাজিল দলের সমর্থকরা । তারা ঘোষনা করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্রাজিল ফ্যান ক্লাব নামে একটি কমিটির । তবে এ নিয়ে তর্কে নেমেছে আর্জেন্টিনার সমর্থকরা । তাদের মন্তব্য একাধিক কমিটি প্রকাশ করে ব্রাজিল দলের সমর্থকরা তাদের চরিত্রের প্রকাশ ঘটিয়েছে। এই কমিটি প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্জেন্টিনার একাধিক সমর্থক ভিন্ন ভিন্ন মতামত প্রকাশ করেছেন যাদের মধ্যে মোঃ ইউসুফ ও অনিক ভৌমিক বলেন ব্রাজিল দলের সমর্থকদের কমিটি করা দেখেই বুঝা যায় এরা শৃংখলিত না ওদের মধ্যে কোন্দল আছে । মাহমুদা আফরোস বলেন-কমিটিতো করলো কয়েকটা,কাপ কয়টা? আর্জেন্টিনা সমর্থক লাবণ্য মুমু বলেন – ব্রাজিল পাঁচবার বিশ্বকাপ নিলেও আমার মনে হয় আর্জেন্টিনার তুলনায় কিছুই না। মেসি একাই একশ। একটা জায়গায় পার্থক্য আছে দুই দলে। ব্রাজিল সুযোগের সদ্ব্যবহার করে আর আর্জেন্টিনা করে না। মোটের উপর আর্জেন্টিনাই বেস্ট ।

অন্যদিকে ব্রাজিল দলের সমর্থকরা বিশ্বকাপে বিজয়ী হওয়ার বক্তব্যেও ভিন্ন ভিন্ন মতামত প্রচার করছে । যাদের একজন ছাব্বির এনাম রেজা।তিনি বলেন – শাড়ের কাছে বাছুর আশা করা আর আর্জেন্টিনার কাছে বিশ্বকাপ আশা করার মধ্যে পার্থক্য নেই । অন্যদিকে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের পতাকার ছবি দেখে ব্রাজিল সমর্থক মেহেদি জামান লিজন বলেন ডেকোরেশন এর কাপড় ।

আর এক আর্জেন্টিনার সমর্থক আরিফুল ইসলাম বলেন- ব্রাজিল ৭টি গোল খেয়ে হজম করতে পারে সেই জন্যে 7 আপ কোম্পানি এই বিশ্বকাপে ব্রাজিলের স্পন্সর হবে । যেন আবারো সাত গোল খায় এবং সেই ঘটনাটিকে 7 আপ কোম্পানি বিজ্ঞাপন হিসেবে প্রচার করবে।

খেলার আমেজ শিক্ষদেরকেও মিলিয়েছে শিক্ষার্থীদের সাথে । এতে যেন শিক্ষক শিক্ষার্থী অন্য কিছু না, পরিচয় নিজ দলের ভক্ত । এমন  একজন আর্জেন্টিনা ভক্ত শিক্ষক সৈয়দ মামুন রেজা । তিনি শিক্ষার্থীদের সাথে ক্যম্পাসের রাস্তায় নেমে দলের জনমত পরীক্ষা  করেন । তিনি ব্রাজিলের কমিটি নিয়ে বলেন- তারা সংখ্যায় কম তাই কমিটি করেছে ,তাতেই তাদের শক্তির আর জনপ্রিয়তা প্রকাশ পায় । আর আমাদের সমর্থক সংখ্যা বেশী তাই আমাদের কমিটির দরকার নেই। আমরা যথাযথ ভাবেই বিশ্বকাপ উপভোগ করবো।

অন্য আরেক শিক্ষক সাকার মোস্তাফা বলেন- আমি আর্জেন্টিনার খেলা পছন্দ  করি কিন্তু খেলাকে কেন্দ্র করে অতি উৎসাহী হয়ে উঠলে সেখান থেকে সংঘাত হয়ে উঠতে  পারে তাই বিশ্বকাপকে নিয়ে অতি উৎসাহী আমি নই । দেশে পছন্দের দলের সমর্থন প্রকাশ করার জন্যে যে পরিমান অর্থের ব্যয় করে পতাকা তৈরি করা হয় তা যদি দেশের পথ শিশু আর পোষাকহীন শিশুদের দেয়া যেতো তাতেও কিছুটা পরিবর্তন আসতো। তাই খেলাকে খেলার মতোই দেখি, উপভোগ করি। খেলাকে কেন্দ্র করে যেন কোন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না ঘটে এমনটাই প্রত্যাশা থাকবে বিশ্বকাপ-২০১৮এ।

ব্রাজিল ফুটবল ফ্যান ক্লাব জাককানইবি,র সভাপতি হিসেবে রিয়াজ আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মাহমুদুল হাসান রিয়াদ । কমিটির উপদেষ্টাদের মধ্যে দুজন শিক্ষক রয়েছেন তারা হলেন আল-জাবির ও সাদমান তাহরীফ প্রত্যয়।

অন্যদিকে আর্জেন্টিনা সমর্থকদেরও বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি কমিটি হয়েছে যেখানে অমিত বসাক শুভ সভাপতি ও নাঈম জাজ সাধারণ সম্পাদক ।

 

Comments

comments

Close