সর্বশেষ সংবাদ
প্রধান সংবাদ, রাজনীতি নেত্রকোনা-৪ নৌকার প্রার্থী বদলের দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত, মদনে পুলিশী বাঁধা

নেত্রকোনা-৪ নৌকার প্রার্থী বদলের দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত, মদনে পুলিশী বাঁধা


পোস্ট করেছেন: bhorerkhobor | প্রকাশিত হয়েছে: 11/29/2018 , 5:17 am | বিভাগ: প্রধান সংবাদ,রাজনীতি


নেত্রকোনা-৪ (মদন-মোহনগঞ্জ-খালিয়াজুরী) আসনে রেবেকা মমিনের আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পরিবর্তনের দাবিতে নেত্রকোনার মদন উপজেলায় পূর্ব ঘোষিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচিতে বাঁধা দিয়েছে স্থানীয় পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে মনোনয়ন বঞ্চিত সাবেক ছাত্রনেতা শফী আহমেদের সমর্থকরা মদন উপজেলার ওয়াজেদ মার্কেটের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশ নেয়ার জন্য জড়ো হতে থাকলে সেখানে পুলিশ ও ম্যাজিষ্ট্রেট এসে বাঁধা প্রদান করে। তখন পুলিশী বাঁধার ছবি তুলতে গেলে তাতেও বাঁধা দেয়া হয়।

এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন মদন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি হাবিবুর রহমান মাস্টার, মদন পৌর মেয়র আব্দুল হান্নান শামীম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি লিটন বাঙ্গালী, সাধারণ সম্পাদক তোফায়েল আহমেদ, আজিজুল হক বিগ চান, বিমান বৈশ্য, ছাত্রলীগ নেতা তারেক, আমিরুল, জুয়েল, আশিক বাঙ্গালী, সোহাগ বাঙ্গালী, খোকা, পলাশ সহ সহস্রাধিক নেতা কর্মী।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচীতে যখন পুলিশি বাঁধা আসে তখন উপস্থিত নেতৃবৃন্দ তাৎক্ষণিক শফী আহমেদের সাথে যোগাযোগ করলে তারা তাদের নেতার দিকনির্দেশনা মেনে কোন রকম ভাংচুর ও সংঘাত না করে শান্তিপূর্ণভাবে কর্মসূচি শেষ করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত দীর্ঘ ১২ বছরেরও অধিক সময় ধরে এলাকায় দলকে সংগঠিত করেছেন শফী আহমেদ। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে বাববের রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করে দলের নেতা কর্মীদের সাহস যুগিয়েছেন তিনি। তার মনোনয়ন পাওয়া এখন সময়ের দাবী। শফী আহমেদকে মনোনয়ন দিলে আসনটিতে আওয়ামীলীগের পক্ষে জয়লাভ করা অনেক সহজ হবে। এছাড়া আসনটি হাতছাড়া হতে পারে মনে করেন তৃণমূলের নেতা ও কর্মীরা।

পাশাপাশি আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়া রেবেকা মমিন নেত্রকোনা-৪ আসনের দুই বারের সংসদ সদস্য, যদিও দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। তিনি বঙ্গবন্ধুর মন্ত্রীসভার খাদ্য প্রতিমন্ত্রী এবং বঙ্গবন্ধুর খুনি খন্দকার মোস্তাকের মন্ত্রী পরিষদের কৃষি ও সাবেক খাদ্যমন্ত্রী প্রয়াত আব্দুল মমিনের সহধর্মিণী।

এদিকে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন (২৮ নভেম্বর) বিকেলে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা শফী আহমেদের পক্ষে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মঈন-উল ইসলামের কাছে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছে তার সমর্থকেরা।

Comments

comments

Close