সর্বশেষ সংবাদ
সবিশেষ সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের জন্য “ইয়ুথ চেইঞ্জ মেকার” এর “সহমর্মিতার হাত” প্রোজেক্ট

সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের জন্য “ইয়ুথ চেইঞ্জ মেকার” এর “সহমর্মিতার হাত” প্রোজেক্ট


পোস্ট করেছেন: bhorerkhobor | প্রকাশিত হয়েছে: 06/12/2019 , 9:19 am | বিভাগ: সবিশেষ


দেশের কিছু উদ্যমী তরুণদের দ্বারা পরিচালিত “ইয়ুথ চেইঞ্জ মেকার” সংগঠনের পক্ষ থেকে দেশের সুবিধাবঞ্চিত শ্রেণীর মানুষদের নিয়ে কাজ করার অন্যতম প্রধান প্রকল্প “সহমর্মিতার হাত”। এবার ঈদ-উল-ফিতরের পূর্বে গত মে ও জুন মাসে “ইয়ুথ চেইঞ্জ মেকার” এর সদস্যরা নিজেদের ব্যক্তিগত উদ্যোগে ও কিছু ফান্ড সংগ্রহের মাধ্যমে ঈদ সামগ্রী ক্রয় করে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও বরিশাল অঞ্চলের অসহায়, দরিদ্র পরিবার ও এতিমখানার বাচ্চাদের মাঝে বন্টন করার জন্য এই কার্যক্রম পরিচালনা করে।

গত ২৩ মে, “ইয়ুথ চেইঞ্জ মেকার” ঢাকা টিমের সদস্যরা “সহমর্মিতার হাত – ঢাকা অঞ্চল” এর কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বাসাবো, খিলগাঁও এর নন্দী পাড়া এলাকার ১০টি অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করে।

এরপর গত ৩১ মে, “ইয়ুথ চেইঞ্জ মেকার” চট্টগ্রাম টিমের সদস্যরা “সহমর্মিতার হাত – চট্টগ্রাম অঞ্চল” এর কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ইলমুল কোরআন মাদ্রাসা ও এতিমখানায় ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে নতুন কাপড় বিতরণ করে।

সর্বশেষ গত ১ জুন, “ইয়ুথ চেইঞ্জ মেকার” বরিশাল টিম ও বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় টিমের সদস্যরা “সহমর্মিতার হাত – বরিশাল অঞ্চল” এর কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বরিশাল নগরীতে অসহায়, দরিদ্র ২৫ টা পরিবার কে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করে।

“ইয়ুথ চেইঞ্জ মেকার” টিম এর পক্ষ থেকে জানানো হয়, ভবিষ্যতেও এই “সহমর্মিতার হাত” প্রোজেক্টটি চালু থাকবে, যার মাধ্যমে দেশের অসহায়, দরিদ্র, এতিম, পথশিশুদেরকে যতটা সম্ভব সাহায্য করা হবে। কারণ এরাও সমাজের একটা অংশ এবং এদের নিয়েই আজকের বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য যে, ২০১৩ সাল থেকে ছোট্ট পরিসরে কাজ শুরু করা “ইয়ুথ চেইঞ্জ মেকার” এখন সারাদেশের প্রায় ১০০০ সদস্যের একটি পরিবারে পরিণত হয়েছে। দেশের সুবিধাবঞ্চিত শ্রেণীর মানুষদের নিয়ে কাজ করার পাশাপাশি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন, জলবায়ু পরিবর্তন, বেকারত্ব সমস্যা দূরীকরণ, দারিদ্র্য ও ক্ষুধা মুক্ত বাংলাদেশ গঠন সহ আরো অনেক উন্নয়নমূলক কার্যক্রমে সক্রিয় অংশগ্রহণ করার ব্যাপারে এই সংগঠনের সদস্যরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

Comments

comments

Close