সর্বশেষ সংবাদ
অপরাধ, রাজনীতি ঝিনাইদহ ছাত্রলীগ সভাপতির ইয়াবা সেবনের ছবি ভাইরাল, অভিযোগ অস্বীকার

ঝিনাইদহ ছাত্রলীগ সভাপতির ইয়াবা সেবনের ছবি ভাইরাল, অভিযোগ অস্বীকার


পোস্ট করেছেন: bhorerkhobor | প্রকাশিত হয়েছে: 06/28/2019 , 10:33 am | বিভাগ: অপরাধ,রাজনীতি


বর্তমান সময়ে ইয়াবা সেবন যেন একটা ট্রেন্ড-এ পরিণোত হয়েছে। আর এই ট্রেন্ড থেকে বাদ যাচ্ছেন না গ্রামের বা জেলা শহরের যুবকেরাও। অনেকের মতে রাজনৈতিক পরিচয়ের আড়ালে থেকে কিছু মুখোশধারী অসৎ লোক এই অনোইতিক কাজগুলোতে ইন্ধন যোগায়।

এমনি এক জেলার প্রভাবশালী ছাত্রনেতার ইয়াবা সেবনের স্থিরচিত্র এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। তার নাম রানা হামিদ। তিনি ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি।

সাম্প্রতিক সময়ে একটি বদ্ধ ঘরে ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির ইয়াবা সেবনরত অবস্থায় থাকা একটি ছবি ভাইরাল হয়। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায় যে, ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রানা হামিদ শহরের আরাপপুরের বাসায় দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা সেবন ও বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে ইয়াবা সরবরাহ করে আসছেন। এর আগে অনেকবার তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলেও স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী নেতার ছত্রছায়ায় থাকবার কারণে  শেষ পর্যন্ত রক্ষা পেয়েছেন রানা।

ইয়াবা সেবনের যে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে সেখানে রানা হামিদের সাথে ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক গ্রন্থ ও প্রকাশনা সম্পাদক কেউ ইয়াবা সেবনরত অবস্থায় দেখা গেছে।

এ বিষয়ে কথা বলতে ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রানা হামিদের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এটা সম্পূর্ণ এডিট করা ছবি। আমাকে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে হেয় ও লাঞ্ছিত করার জন্যই একটি কুচক্রী মহল এ কাজটি করেছে’।

তাহলে ছবিতে ইয়াবা সেবনরত অবস্থায় যাকে দেখা যাচ্ছে তিনি কি আপনি নন? এমন প্রশ্নের জবাবে রানা হামিদ বলেন, দেখুন আমাদের কমিটি মেয়াদ অনেক দিনের, নতুন কমিটি দেয়ার জন্য আমরা সম্প্রতি কেন্দ্রে আমাদের পূর্ণাঙ্গ কমিটি জমা দিয়েছি। এ ভিত্তিতে বর্তমান কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী ভাই প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে যে যদি কমিটির কাউকে নিয়ে জেলার কারোর যদি কোন অভিযোগ থাকে এবং কোন পরামর্শ থাকে সে ব্যাপারে মতামত দেয়ার জন্য। এ সুযোগটাই কাজে লাগিয়েছে সেই কুচক্রী মহল। আমার ছবি এডিট করে আমার নাম দিয়ে ছড়িয়ে দিয়েছে সামাজিক নানা মাধ্যমে’।

যদিও বিষয়টিকে ভালোভাবে দেখছে না কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ছাত্রলীগের এক কেন্দ্রীয় নেতা বলেন, আমাদের কানেও বিষয়টি এসেছে। যদি ঘটনা সত্য হয় তবে সংগঠনের নিয়ম অনুযায়ী ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে।

Comments

comments

Close