সর্বশেষ সংবাদ
প্রধান সংবাদ, বিভাগীয় সংবাদ, ময়মনসিংহ বিভাগ অবৈধ বালু উত্তোলন করায় নেত্রকোনায় ১৮ লাখ টাকা জরিমানা

অবৈধ বালু উত্তোলন করায় নেত্রকোনায় ১৮ লাখ টাকা জরিমানা


পোস্ট করেছেন: bhorerkhobor | প্রকাশিত হয়েছে: 09/08/2019 , 12:19 pm | বিভাগ: প্রধান সংবাদ,বিভাগীয় সংবাদ,ময়মনসিংহ বিভাগ


নেত্রকোনায় কংস নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে পাঁচ বালু ব্যবসায়ীকে ১৮ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। রবিবার সকাল থেকে দুপুর নাগাদ জেলা প্রশাসনের একটি টিম মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করে।

এ সময় সদরের মেদনি ও কে-গাতী এই পৃথক দুটি ইউনিয়নের নাজিম উদ্দিন (৫ লাখ টাকা), আবুল ফাত্তাহ (৫ লাখ টাকা), মো. শাহাঙ্গীর (৩ লাখ টাকা), শামীম মিয়া (৩ লাখ টাকা) ও মামুন মিয়া (২ লাখ টাকা) কাছ থেকে মোট ১৮ লাখ টাকা আদায় করা হয়।

অভিযান পরিচালনা করেন নেত্রকোনা সহকারী কমিশনার (ভূমি সদর উপজেলা) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট বুলবুল আহমেদ এবং সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাহীন মাহমুদ।
ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, সকালে কংশ নদীর পাড়ে সদর উপজেলার বড়ওয়ারী এলাকায় গিয়ে নদী থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের বিষয়টি প্রশাসন হাতেনাতে প্রমাণ পায়। তাৎক্ষনিক মঈনপুর গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে আবুল ফাত্তাহকে নগদ ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। পরবর্তীতে কংশ নদীর হাতকুন্ডলীসহ বেশ কটি জায়গায় নাজিম উদ্দিন, মো. শাহাঙ্গীর, শামীম মিয়া ও মামুন মিয়ার ড্রেজার মেশিনে অভবৈধভাবে বালু উত্তোলন ধরা পড়ে। তাৎক্ষণিক তাদেরকেও মোবাইল কোর্টে জরিমানা করা হয়।

এছাড়াও নদী থেকে উত্তোলিত বালু প্রচুর পরিমাণ বালু জব্দ ও একটি ড্রেজার মেশিন আগুনে পুড়িয়ে দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত। অপরদিকে জব্দকৃত ওইসব বালু নিলামের মাধ্যমে পরবর্তীতে বিক্রি করা হবে বলেও জানান।

ম্যাজিস্ট্রেট বুলবুল আহমেদ জানান, দীর্ঘদিন ধরে কংস নদীর বিভিন্ন এলাকায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছিল একটি স্বার্থন্বেষী মহল। এমন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার সকালে বিশেষ অভিযান পরিচালিত হলে হাতেনাতে প্রমাণ পাওয়া যায়।

বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন অনুযায়ী অবৈধ বালু উত্তোলনকারী ব্যবসায়ীদের জরিমানা করা হয়েছে ১৮ লাখ টাকা। পরবর্তীতে ওই ব্যবসায়ীরা যদি আবারও একই অপরাধে জড়িত হয় তবে তাদের বিরুদ্ধে এরচেয়েও কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Comments

comments

Close